বাংলাদেশ বোর্ড অব ইউনানী অ্যান্ড আয়ুর্বেদিক
সিস্টেমস্ অব মেডিসিন

Medicinal Plants:

অশোক

প্রচলিত নাম: অশোক
ইউনানী নাম অশোকা, শামশাদ (দেশী)
আয়ুর্বেদিক নাম: অশোক, হেমাপুষ্প, তাম্রপত্রী
ইংরেজী নাম: Ashoka
বৈজ্ঞানিক নাম: Saraca indica Linn.
পরিবার: Caesalpiniaceae
পরিচিতি: অশোক একটি মধ্যম আকৃতির বৃক্ষ। এটি ৮-১০ মিটার উঁচু হতে দেখা যায়। গাছের ছাল কালচে রংয়ের হয়। পাতা যৌগিক, প্রতি ডাঁটায় ৩-৭ জোড়া পত্রক থাকে, ১৫-২০ সে.মি. পর্যন্ত লম্বা ও ৩-৪ সে.মি. চওড়া হয়ে থাকে । নতুন পাতার রং লালচে তামাটে বর্ণের, পরিণত পাতা সবুজ। ফুলের রং লালচে কমলা বর্ণের।
প্রাপ্তিস্থান: বাগানে ও রাস্তার পাশে লাগানো হয়, তবে প্রাকৃতিক অবস্থায় চট্টগ্রাম ও পার্বত্য চট্টগ্রামে পাওয়া যায়। সিলেটের বনাঞ্চলেও জন্মে।
রোগের সময় ও পদ্ধতি: বীজের মাধ্যমে এর বংশ বিস্তার করা হয় । জুন-জুলাই মাসে এই গাছের ফল পাকে। ফল থেকে বীজ সংগ্রহের পর তা রৌদ্রে শুকিয়ে বীজ তলায় বা পলিব্যাগে লাগানো যায়। এর বীজ বেশী দিন সংরক্ষণ করা যায় না। বীজ বপনের পূর্বে ২৪ ঘন্টা পানিতে ভিজিয়ে রাখতে হবে। চার থেকে ছয় সপ্তাহের মধ্যে বীজের অঙ্কুরোদ্গম হয়। অঙ্কুরিত চারার বয়স ১-২ বৎসর হলে তা রোপন করতে হয়। বর্ষাকাল চারা রোপণের উৎকৃষ্ট সময়।
রাসায়নিক উপাদান: ছালে প্রচুর পরিমাণ ট্যানিন, হিমাটক্রাইলিন ও খনিজদ্রব্য বিদ্যমান। এ ছাড়াও এতে কিটোস্টেরল এবং স্যাপোনিন বিদ্যমান।
ব্যবহার্য আংশ: ছাল, বীজ ।
গুণাগুণ: মাসিক স্রাবের গোলযোগ, বাধক বেদনা, প্রদর, আমযুক্ত মল, অনিয়মিত ঋতুস্রাব ও অতিরিক্ত ঋতুস্রাবে উপকারী।
বিশেষ কার‍্যকারিতা: মাসিক স্রাবের গোলযোগ, বাধক বেদনা, ও প্রদরে কার্যকরী।
রোগ অনুযায়ী ব্যবহার পদ্ধতি:
সতর্কতা: নির্দিষ্ট মাত্রার অধিক সেবন অনুচিত
3 Next 4



যোগাযোগ
bbuasm@gmail.com
০২-৪৮১১১৪৬০,০২-৪৮১১০৩১২

© 2020 Copyright: bbuasm.gov.bd

Developed by